ঘুষ দুর্নীতি করে অর্ধশত কোটি টাকার মালিক ঝিনাই

29

ভাবে ঘুষ, দুর্নীতি শিক্ষকদের সাথে দুর্ব্যবহার সহ অফিসে ব্যাপক অনিয়নের অভিযোগ উঠেছে ঝিনাইদহ জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোকছেদ আলীর বিরুদ্ধে। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহা পরিচালক বরাবর শাস্তি ও বদলীর জন্য অভিযোগ করেছে ঝিনাইদহ জেলা বে-সরকারি স্কুল ও মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে মোঃ আব্দুল মান্নান নামের এক শিক্ষক।

অভিযোগ পত্রের সুত্রে জানা গেছে যে সরকারি বিধি মোতাবেক কোন উচ্চ পদস্ত কর্মকর্তার নিজ জেলায় থাকার বিধান না থাকলে উপর মহলের ম্যানেজ করে ০১/০৮/২০১৬ তারিখ থেকে ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষা অফিসার হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন। জানা গেছে সে এর আগে ৩১/১২/২০০২ হতে ১৪/১২/২০০৩, ০১/০৬/২০০৪ হতে ১৬/০৬/২০০৫ ও ১৪/১১/২০১১ হতে ০/০৪/২০১৪ ইং তারিখ পযুন্ত ৩ বার এই জেলায় শিক্ষা অফিসার হয়ে এসেছেন। বর্তমানে ৪র্থ বারের মত ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষা অফিসার। প্রতিবার সে শিক্ষক দের সাথে অসদাচরণ ও দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ে।

এই শিক্ষা অফিসার দুর্নীতি করার জন্য সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে। তার মাধ্যমে নিয়োগ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি বাবাদ গাড়ির তেল খরজের জন্য ৮/১০ হাজার টাকা নিয়ে থাকে। প্রতিটা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের জন্য মোটা অংকের টাকা তাকে দিতে হয়, না দিলে শিক্ষক নিয়োগের অনুমতি প্রদান করে না। সে নিজে অফিসে আসে সকাল ১০ টার পরে এবং ২ টায় চলে যায়। যার কারনে অফিসের পরিদর্শক গন অনেক সময় অফিসে বসে সময় কাটান অথবা অফিসে আসে না। অফিসে কোন কাজের জন্য শিক্ষকদের ঘুরতে হয় দিনের পর দিন।