মিয়ানমারে ৯ হাজার রোহিঙ্গার মৃত্যু হয়েছে: এমএসএফ

81

মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ যে রোহিঙ্গাদের ওপর ব্যাপক নৃশংসতা চালিয়েছে এই চিত্রই তার প্রমাণ।
মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সহিংসতার শিকার হয়ে ৬ লাখ ৪৭ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে বলেও উল্লেখ করেছে এসএসএফ।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের ৩০টি পুলিশ চেকপোস্টে হামলা চালায় তথাকথিত সন্ত্রাসীরা। এতে ১২ নিরাপত্তা কর্মী নিহত হয়ে বলে দাবি করে নেইপিদো। এরপরই সেনাবাহিনী দেশটির রাখাইন রাজ্যের সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে। জাতিসংঘ এই অভিযানকে জাতিগত নিধন বলে উল্লেখ করে।

সংস্থাটির মেডিকেল ডিরেক্টর সিডনি অং বলেছেন, ‘আমরা যা গবেষণায় পেয়েছি তা সংখ্যা ও নিহতের ধরন উভয় দিক থেকেই ভয়ংকর।’

সংস্থাটি বলছে, গত মাসে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে একটি চুক্তি হয়েছে। কিন্তু এই মুহূর্তে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত যাওয়ার মতো পরিস্থিতি নেই। কারণ সাম্প্রতিক সময়েও সেখানে সহিংসতার খবর পাওয়া গেছে এবং এখনও লোকজন সেখান থেকে পালাচ্ছে। এখনও রাখাইন রাজ্যে ত্রাণকর্মীদের প্রবেশে বিধি-নিষেধ রয়েছে।

অন্যদিকে, রেডক্রসের বরাত দিয়ে গার্ডিয়ান বলেছে, এ পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে ৬ লাখ ৪৭ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। সংস্থাটি বলছে, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে ঢাকা ও নেইপিদোর মধ্যে গত মাসে যে চুক্তি হয়েছে, সেই চুক্তি অনুযায়ী রোহিঙ্গাদের এই মুহূর্তে ফেরত পাঠানো নিরাপদ নয়।