তিলোত্তমা : নীলিমা শামীম 

36

 

তিলোত্তমা নামটি তাহার, মন কাড়া রুপ যাহার,
পাড়ার লোকে দেখেই তিনারে মুখ হয়যে উৎস আভার।
কি করে সে থাকবে বলো? এমন গোমরা মুখে আবার,
হাস্য রসে থেকেই যখন কেড়েছে হৃদয়ের মন-প্রান সকলের।
কটিন গ্রহন লাগেনি আজো শুনেছি তার জীবনে মম,
শেওলার ছোয়ায় হয়কি দুষন পুরনিমায় চাঁদেরকণা সম।
কথার ছলে মন কাড়ে সে, মন কাড়ে চাহনির জলকনার
রাগান্বিত হলেই নাকি ভুলে যায় নিজ আত্মসন্মাননা মমতার।
সবার সেরা সর্দারনী নামটি নাকি রেখেছিলেন শ্বশুড় মশায়,
ছোট বউরানী হয়েও সে রয়েছেন উচ্ছাশনের শীর্ষনাম সীমানায়।
মন্তব্যের ভয় করেনা নিজ সত্ব্যার কাছে করেনিকে মাথা নত
যতই আসুখ ঝড় স্থীর দাঁড়িয়ে রয়েছে হয়নিকো ভয়ে কভু ভীত।
বছর বছর ১লা বৈশাখীর আপ্যায়নে নিজেই রয় যে অনাব্রৃত,
এমনই সময় হয়কি খোয়া নিন্দুকের কতপতকনে নিজেরে আব্রৃত।
পিত্যিতুল্য ভাসুর, মাত্যৃতুল্য বড়জা হয়নি যখন কারো উপকারী,
সর্বশেষ অবস্থানে থেকে কঠোর হস্থে স্বামীর সন্মানেই নিয়েছে তরবারী।
সকলের লাগিয়ে করিয়াছে ধংস যে জন নিজেরে কভু পরাজয় এই সংসারে,
বিধাতা তার অমুল্য উপহার রাখিয়াছেন শুনিয়াছি ওই পর দুনিয়াদারে।
নিন্দুকের কথায় হয়কি কভু পরাভুত কোনো সৈনিকের কঠোর তরবারী,
রুখে দাড়াবার সময় দাড়িয়েছে যেই, সেই নাকি প্রকৃত সাহসী মুসলিম নারী।